প্রকাশঃ Wed, Apr 7, 2021 12:39 AM
আপডেটঃ Sat, Apr 17, 2021 4:03 AM


দোকান খোলার দাবিতে কুমিল্লায় ব্যবসায়ীদের বিভোক্ষ

দোকান খোলার দাবিতে কুমিল্লায় ব্যবসায়ীদের বিভোক্ষ

রুবেল মজুমদার: করোনা ভাইরাস মহামারির ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সারাদেশে সাত দিনের লকডাউনের ২য় দিন আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে কুমিল্লা নগরীর বিভিন্ন স্থানে দোকান মালিক  সমিতি মানববন্ধ ও বিভোক্ষ মিছিল করেন। এদিকে আলদাভাবে একই সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে লকডাউনের মধ্যেই দোকান খোলার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে নগরীর নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও দোকান কর্মচারীরা।





মঙ্গরবার  সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। নগরীর খন্দ্কার হক টাওয়ার,সাত্তার খান কপ্লেমক্স,ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজা,গনি ভুঁইয়া ম্যানশন ,নিউমাকেট,বাহার মার্কেট দোকান মালিক ও কর্মচারীরা এসময় বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন।রাস্তা অবরোধ করে এসময়  তারা নগরীর বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন আন্দোলনকারী ।পরে বিক্ষোভ  মিছিলটি দুপুর ১২ টার দিকে কুমিল্লা স্থানীয় সংসদ সংসদ হাজী  আ.ক.ম বাহার উদ্দিন বাহারের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন ।



এসময় বিক্ষোভকারীদের আশ্বাস দিয়ে সাংসদ বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যবসায়ী নেতৃত্ববৃন্দ প্রধানমন্ত্রী সাথে যোগাযোগ করছেন,আশা করি আগামী বৃহস্পতিবারে মাঝে এই বিষয় একটি সিন্ধান্ত আসবে।আর যদি না আসে তাহলে আমরা  এই বিষয় স্থানীয় ভাবে সিন্ধান্ত নিবো ।আপনার বৃহস্পতিবার পর্ষন্ত ধের্ষ ধরুন।আশা করি কয়েকদিনের মধ্যে ভালো খবর আসবে।


এদিকে কুমিল্লা দোকান মালিক সমিতি সভাপতি আতিকুল্লাহ খোকন বলেন,দোকানদার বাধ্য হয়ে রাস্তা নেমেছে।আমি কাউকে বলিনি ,গত বছর লকডাউনের কারনে ব্যবসায়ীরা আয় রোজগার করতে পারি নি।ব্যবসায়ীদের ব্যাংকের লোনের টাকা না দিতে পেরে অনেকে দোকান বন্ধ করে দিয়েছে ।আমরা চাই  সরুকার এই লকডাউনের আমাদের সীমিত আকারে হলেও দোকান খোলা  অনুমতি প্রদান করা হউক।না হয় আমরা লাগাতর আন্দোলনের রাস্তা নামবো । মার্কেট খেলার জন্য আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আমরা চাই সরকার সীমিত পরিসরে হলেও মার্কেট খুলে দিক।



এসময় নগরীতে বিভোক্ষের কারনে শহরে বিভিন্ন স্থানের যানজট সৃষ্টি হয়।এতে করে শহরে গুরুত্বর্পুন রাস্তাগুলো বন্ধ হয়ে যায়,পথচারী ও যাত্রীদের  চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে ।টানা দুই ঘন্টা ব্যাপি সারা শহর অচল অবস্থা সৃষ্টি হয়।নগরীর শাসনগাছা, কান্দিরপাড় বিশ্বরোড এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।


কুমিল্লা নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীরা নেতা বাবুল মিয়া বলেন  ‘গত বছর লকডাউনের কারণে ব্যবসায়ীরা  অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেটা এখনও পুষিয়ে না উঠতেই সরকারে আবারও লকডাউন। এতে করে আমাদের দোকান ভাড়া চালানো অসভ¦ব হয়ে পড়েছে ।তাছাড়া  সামনে ঈদ, তাই ঈদ উপলক্ষে দোকান খুলে দিতে হবে।তা না হলে আমাদের ইদ ও রমজান কে সামনে বিনিয়োগ করা অর্থ তুলে আনা কষ্ট হবে। দোকান খোলার দাবিতে নিউমার্কেটে ব্যবসায়ী-কর্মচারীদের বিক্ষোভ দোকান খোলার দাবিতে গতকাল সোমবার  থেকে আন্দোলন করছেন ব্যবসায়ী ও দোকান কর্মচারীরা।



উল্লেখ্য করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে আজ সোমবার থেকে সাত দিনের লকডাউন ঘোষণা করে গণপরিবহন চলাচল বন্ধের পাশাপাশি বাজার-মার্কেট, হোটেল-রোস্তোরাঁসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার।



www.a2sys.co

আরো পড়ুন